আজ : ২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১০ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, শনিবার প্রকাশ করা : জুন ২০, ২০২১

  • কোন মন্তব্য নেই

    সিংড়ায় ১৪০ বছরের পুরনো রাস্তা কেটে নেওয়ার অভিযোগ রেজাউল কবিরাজের বিরুদ্ধে

    সিংড়ায় ১৪০ বছরের পুরনো রাস্তা কেটে নেওয়ার অভিযোগ রেজাউল কবিরাজের বিরুদ্ধে

    সাইদুর রহমান, স্টাফ রিপোর্টার:

    নাটোরের সিংড়া উপজেলার লালোর ইউপির হাপুনিয়া গ্রামের রেজাউল কবিরাজ নামক এক ব্যাক্তির বিরুদ্ধে সরকারি রাস্তা কেটে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। স্থানীয় সূত্র জানায়, প্রায় ১৪০ বছর পূর্বে হাপুনিয়া,সোনাউডাঙা ও নগরমাঝ গ্রামের মানুষের উপজেলা শহরে যাতায়াতের সুবিধার্থে রাস্তাটি নির্মান করা হয়েছিলো।সম্প্রতি হাপুনিয়া গ্রামের ভূমিদস্যু ও প্রতারক চক্রের গডফাদার বিএনপি কর্মী রেজাউল কবিরাজ প্রায় ৩০০ মিটার রাস্তা তার জমির উপরদিয়ে গেছে দাবি করে রাস্তা কেটে নিতে শুরু করলে গ্রাম বাসিরা উপজেলা ভূমি অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ করলে সিংড়া উপজেলা ভূমি অফিসার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয়।রেজাউল কবিরাজ ভূমি অফিসারের কথা অমান্য করে গোপনে রাতে রাতে রাস্তা কেটে নিয়ে অন্যের জমি জবরদখল করে রাস্তা নির্মান করেছে।

    অভিযোগ রয়েছে বিএডিসির আওতাধীন খাল খনন প্রকল্পের কাজ শুরু হলে রেজাউল প্রভাব খাটিয়ে জফির উদ্দিন সরদারের ছয় ছেলের জমির উপর দিয়ে খান তৈরি করিয়ে নেয়। জফির উদ্দিনের ছেলে জানায় রেজাউল যতটুকু রাস্তা কেটে নিয়ে নতুন রাস্তা তৈরি করেছে সবটাই আমারদের পৈতৃক সম্পত্তি আমাদের বৈধ দলিল পত্র রয়েছে কিন্তু রেজাউল ভয়ভীতি দেখিয়ে আমাদের জমির উপর দিয়ে খাল ও রাস্তা তৈরি করে রাস্তার সরকারি জায়গা দখল করে নিচ্ছে। রেজাউল কবিরাজ দাবি করেন ক্রয়সূত্রে আমি জমির মালিক বিধায় আমি আমার জমির মাঝ থেকে রাস্তা সরিয়ে একপাশ দিয়ে তৈরি করে দিচ্ছি।

    এবিষয়ে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) রকিবুল হাসান জানান,আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে কাজ স্থগিত রাখতে নির্দেশ দিয়ে জমির কাগজপত্র দেখতে চাই। আমাকে কাগজ পত্র না দেখিয়ে গোপনে মাটি কেটে নেওয়ার অভিযোগ পেয়েছি পরবর্তীতে জমির কাগজ পত্র আমার কাছে নিয়ে আসে জমি পরিমাপ করে তার কথা সঠিক হলে তার জমি বুঝিয়ে দেওয়া হবে আর যদি অন্যের জমি দখলের প্রমান পাওয়া যায় তবে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *